মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৩:৪৫ অপরাহ্ন
Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২০, ০৭:৪৮ PM
  • ২৮ বার পড়া হয়েছে

জাতীয় পার্টি স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট নিয়ে রাজনীতির মাঠে আছে

ঢাকা, শনিবার, ২১ নভেম্বর-২০২০ : জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জনবন্ধু গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগের সাথে জোটবদ্ধ হয়ে জাতীয় পার্টি নির্বাচন করেছে। জাতীয় পার্টি নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে সাহায্য করেছে, তেমনি আওয়ামী লীগও সাহায্য করেছে জাতীয় পার্টিকে। তিনি বলেন, তার মানে এই নয় যে, জাতীয় পার্টি এখন আওয়ামী লীগ হয়ে গেছে। নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট নিয়ে রাজনীতির মাঠে আছে। জাতীয় পার্টি এগিয়ে যাচ্ছে, পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর আদর্শ বাস্তবায়নে। বলেন, এখনো দেশের প্রত্যান্ত অঞ্চলে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের অগনিত ভক্ত অনুরাগী এবং জাতীয় পার্টির সমর্থক রয়েছে। এসময় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জনবন্ধু গোলাম মোহাম্মদ কাদের আরো বলেন, অনেকেই মনে করেন জাতীয় পার্টি এখন আওয়ামী লীগ হয়ে গেছে। এটা তাদের ভুল ধারনা। জাতীয় পার্টি যদি আওয়ামী লীগ হয়ে যায়, তাতে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির শত্রুরা লাভবান হবে। তারা আমাদের ভোট নিতে চেষ্টা করবে। তিনি বলেন, ৯১ সালের পর থেকে যারা দেশ পরিচালনা করেছেন তার মধ্যে জাতীয় পার্টির শাসনামলেই বেশি সুশাসন বিদ্যমান ছিলো। বলেন, যারা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে স্বৈরাচার বলেছেন, তারাই এখন বলছেন এরশাদ অপেক্ষাকৃত কম স্বৈরাচার ছিলেন। জাতীয় পার্টির শাসনামলে তুলনামুলক কম দুর্নীতি ছিলো বাংলাদেশে।

আজ সন্ধ্যায় ইনষ্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জনবন্ধু গোলাম মোহাম্মদ কাদের আরো বলেন, শীতে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাচ্ছে। কিন্তু সেজন্য সরকারী হাসপাতালে যথেষ্ট প্রস্তৃতি দৃশ্যমান হচ্ছেনা। তিনি বলেন, রাজধানীতে করোনা চিকিৎসায় কিছু সরকারী ও বেসরকারী হাসপাতালে অক্সিজেন সহায়তা এবং লাইফ সার্পোটের ব্যবস্থা আছে। কিন্তু সাধারণ মানুষের পক্ষে বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার সামর্থ নেই। আবার রাজধানীর বাইরের হাসপাতাল গুলোতেও অক্সিজেন সার্পোট অথবা লাইফ সাপোর্ট দৃশ্যমান নেই। অথচ হাজার কোটি টাকায় বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে, কিন্তু মানুষের জীবন বাঁচাতে দৃশ্যমান উদ্যোগ নেই।

এসময় জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, দেশে নতুন নতুন ফ্লাইওভার ও পদ্মা সেতু দেখা যাচ্ছে কিন্তু মানুষের জীবনের নিরাপত্তা দেখা যাচ্ছে না। বলেন, দেশের মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নেই। খুন, ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতন নিত্যনৈমত্তিক ব্যপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। বলেন, দুর্নীতিতে দেশ ছেয়ে গেছে। দেশের মানুষ কথা বলতে পারছেনা, মানুষের বাক স্বাধীনতা নেই। ভয়-ভীতি উপেক্ষা করেই দেশের মানুষের দুঃখ-কষ্টের কথা বলতে হবে। বলেন, পল্লীবন্ধু স্বাস্থ্যনীতি, অসুধনীতি ও শিক্ষা নীতি করে দেশে সুশাসন দিয়েছিলেন। পল্লীবন্ধু এরশাদই উন্নয়ন এবং সুশাসন এক সাথে দিতে পেরেছন। তাই দলকে আরো শক্তিশালী করে পল্লীবন্ধুর হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর স্বপ্নের ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত নতুন বাংলাদেশ গড়তে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রতিনিধি সভায় বক্তব্য রাখেন- জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য জহিরুল ইসলাম জহির, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম রুবেল, জাপা ঢাকাম হানগর দঃ এর সহ-সভাপতি হাজী মোঃ ফারুক, এম.এ সোবহান, দফতর সম্পাদক মাহবুবুর রহমান খসরু, যাত্রাবাড়ি থানা সভাপতি আখতার দেওয়ান, গেন্ডারিয়া থানা সভাপতি শারফুদ্দিন আহমেদ শিপু, শাহবাগ থানা সভাপতি ইব্রাহিম আজাদ, ধানমন্ডিথানা সভাপতি মোঃ শাহজাহান, শাহজাহানপুর থানা সভাপতি শেখ নেয়ামত উল্লাহ নবু, সবুজবাগ থানা সভাপতি এম.এ কাইয়ুম, খিলগাঁও থানা সভাপতি আবুল বাশার বাসু, মতিঝিল থানা সভাপতি জুবের আলম খান রবিন, সূত্রাপুর থানা সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, ডেমরা থানা সভাপতি মামুন মোল্লা, নিউমার্কেট থানা সভাপতি শাহাদত হোসেন, কদমতলি থানা সাধারণ সম্পাদক শেখ মাসুক রহমান, শাহজাহানপুর থানা সাধারণ সম্পাদক মোঃ সেলিম।

সভায় উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টাড. মোঃ নূরুল আজহার, মনিরুল ইসলাম মিলন, মোঃ হারুন আর রশীদ, যুগ্ম-মহাসচিব ফকরুল আহসান শাহজাদা, মোঃ বেলাল হোসেন, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য- মোঃ হুমায়ুন খান, এনাম জয়নাল আবেদীন, সুলতান মাহমুদ, মাসুদুর রহমান মাসুম, জহিরুল ইসলাম মিন্টু, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইসহাক ভুইয়া, মিজানুর রহমান মিরু, যুগ্ম-সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য সুজন দে, মাহমুদ আলম, সমরেশ মন্ডল মানিক, মোঃ দ্বীন ইসলাম শেখ, শাহনাজ পারভীন, কেন্দ্রীয় নেতা- শামছুল হুদা মিঞা, ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, মাওলানা খলিলুর রহমান সিদ্দিকী, মামুন হাসান মনির, মিনি খান, শামসুল আলম, মোঃ ফজলুল হক, জাতীয় ছাত্র সমাজের কেন্দ্রীয় সভাপতি মোঃ ইব্রাহিম খান জুয়েল, সহ-সভাপতি শাহ ইমরান রিপন প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

এই জাতীয় আরো নিউজ

© All rights reserved © 2020 bd-bangla24.com

Theme Customized By Subrata Sutradhar