শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:০৯ অপরাহ্ন
Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ৩ জানুয়ারী, ২০২১, ০৪:০৩ PM
  • ৫০৮ বার পড়া হয়েছে

এবি পার্টির উত্তরাঞ্চলে কর্মশালা ও বিভিন্ন উপজেলায় আহ্বায়ক কমিটি গঠন

তিনটি বুর্জোয়া রাজনৈতিক দল ৪৯ বছর দেশ শাসন করেছে। অবকাঠামোগত উন্নয়নের আড়ালে তারা লুটে নিয়েছে হাজার হাজার কোটি টাকা। তাদের হাতে দেশের গণতন্ত্র, ভোটাধিকার, জন নিরাপত্তা, রাজনৈতিক ঐতিহ্য, পরমত সহিষ্ণুতা, আইন শৃঙ্খলা, বিচার বিভাগ ইত্যাদি সব ধ্বংস হবার পথে। আদর্শিক দলগুলো ছিল এই তিন দলের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগী।

রংপুর বিভাগের সংগঠক ও নেতৃববৃন্দ কে নিয়ে এবি পার্টির কর্মশালা এবং লালমনিরহাট ও নীলফামারী জেলার ৪টি উপজেলার কমিটি গঠন উপলক্ষ্যে এবি পার্টির কেন্দ্রীয় নেতবৃন্দ সম্প্রতি উত্তরাঞ্চল সফর করেছেন।

এবি পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক এডভোকেট তাজুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল গত ৩১ ডিসেম্বর রংপুর এসে পৌঁছান। প্রতিনিধি দলে রয়েছেন দলের অন্যতম যুগ্ম আহ্বায়ক জননেতা আলহাজ্ব আবু হেনা মো. এরশাদ হোসেন সাজু, সদস্য-সচিব মজিবুর রহমান মন্জু, সহকারী সদস্য-সচিব জননেতা আব্দুল বাছেত মারজান ও সহকারী সদস্য-সচিব এডভোকেট আব্দুর রউফ।

২০২১ সালের প্রথমদিন ১লা জানুয়ারি সকাল ১১টায় রংপুর মহানগরস্থ রংপুর কমিউনিটি সেন্টারে বিভাগের সংগঠক ও নেতৃববৃন্দ কে নিয়ে দিনব্যাপী রাজনৈতিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন রংপুর মহানগর এবি পার্টির আহ্বায়ক ও কেন্দ্রীয় সহকারী সদস্য-সচিব এডভোকেট আব্দুর রউফ। কর্মশালায় দলের নীতি, চ্যালেঞ্জ ও করনীয় নিয়ে নেতবৃন্দ গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশন প্রদান করেন।

১লা জানুয়ারী বেলা ১২ টায় নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলা কমিটি গঠন উপলক্ষ্যে স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে এক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন নীলফামারী জেলা আহ্বায়ক অধ্যাপক আবু হেলাল। প্রধান ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক এডভোকেট তাজুল ইসলাম ও আলহাজ্ব আবু হেনা মো. এরশাদ হোসেন সাজু।

একইদিন (১লা জানুয়ারী) বিকেল ৪টায় লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলা কমিটি গঠন ও সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় পাটগ্রাম পৌরসভা কমিটি গঠনের জন্য দু’টি পৃথক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। লালমনিরহাট জেলা এবি পার্টির আহ্বায়ক অধ্যাপক আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলন গুলিতে কেন্দ্রীয় নেতবৃন্দ বক্তব্য রাখেন ও নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষনা করেন।

পাটগ্রাম উপজেলা কমিটি গঠন উপলক্ষ্যে ১লা জানুয়ারি দিনের সর্বশেষ কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় সীমান্তবর্তী বুড়িমারী স্থল বন্দরে রাত ৯টায়। ব্যাপক জনসমাগমের কারণে সম্মেলন টি এক পর্যায়ে জনসভায় রূপ নেয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এডভোকেট তাজুল ইসলাম ও প্রধান বক্তা ছিলেন মজিবুর রহমান মন্জু। আলহাজ্ব আবু হেনা মো. এরশাদ হোসেন সাজু’র সভাপতিত্বে এই সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন মিঠাপুকুর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান জননেতা আব্দুল বাসেত মারজান ও অধ্যাপক আসাজুজ্জামান আসাদ।

২ জানুয়ারী সর্বশেষ কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় নীলফামারী জেলা পরিষদ মিলনায়তনে। নীলফামারী সদর উপজেলার কমিটি গঠনকল্পে আয়োজিত সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক আবু হেলাল।

সম্মেলন সমূহে এবি পার্টি নেতবৃন্দ বলেন- গত ৪৯ বছরে তিনটি বুর্জোয়া রাজনৈতিক দল দেশ শাসন করেছে। তারা দেশের কিছু অবকাঠামোগত উন্নয়নে ভূমিকা রাখলেও সেখান থেকে লুটে নিয়েছে হাজার হাজার কোটি টাকা। তাদের দ্বারা দেশে গণতন্ত্র, ভোটাধিকার, জন নিরাপত্তা, রাজনৈতিক ঐতিহ্য, পরমত সহিষ্ণুতা, আইন শৃঙ্খলা, বিচার বিভাগ ইত্যাদি সব ধ্বংস হবার পথে। আদর্শিক রাজনৈতিক দলগুলো ক্ষমতার ভাগাভাগিতে এসব বুর্জোয়া দলের সাথে মিলে তাদের আদর্শিক চরিত্র জলাঞ্জলি দিয়েছে। দেশ আজ নেতৃত্ব শূন্য। দুর্নীতি এখন সকল ক্ষেত্রে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ লাভ করেছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন এরকম হতাশা জনক পরিস্থিতিতে দেশে নতুন রাজনীতি অপরিহার্য। এবি পার্টি সকল দলের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে ৭ দফা কর্মসূচির ভিত্তিতে বাংলাদেশ পূণর্গঠনের ডাক দিয়েছে। সকল বাঁধা-বিপত্তি, উপহাস, ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার মোকাবিলা করে তৃণমূলে ক্রমান্বয়ে এবি পার্টিকে শক্তিশালী করার জন্য নেতবৃন্দ গুরুত্বারোপ করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

এই জাতীয় আরো নিউজ

© All rights reserved © 2020 bd-bangla24.com

Theme Customized By Subrata Sutradhar