রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ১১:১১ অপরাহ্ন
Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২১, ০৬:৩৫ PM
  • ৫০ বার পড়া হয়েছে

করোনার মধ্যেও চাঁদাবাজির মহোৎসব চলছে

বৈশ্বিক মহামারি করোনায় লন্ড-ভন্ড জীবন জীবিকার মধ্যেও চাঁদাবাজির মহোৎসব চলছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের অন্যতম সহযোগি সংগঠন হকার্স শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। করোনায় সর্বস্ত্র হারিয়ে যখন হকারা ধারদেনা করে যখন পুনরায় ব্যবসা শুরু করেছে, তখনই চাঁদাবাজরা হকারদের উপর শুকুনের মতো ঝাঁপিয়ে পড়ছে। প্রতি দোকান থকে ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত চাঁদা নিচ্ছে। চাই বেচাকেনা হোক বা না হোক। চাঁদা দিতে না পারলে হকারদের সন্ত্রাসী কায়দায় জুলুম নির্যাতন করা হয়। ফলে হকারদের কাছে করোনার চেয়ে ভয় চাঁদাবাজদের। নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনার ফলে বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষ কর্মহীন হওয়ায় হকারদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এই সুযোগে চাঁদবাজরা আরো বেশি বেপরোয়া হয়ে উঠছে। এভাবেই দুর্নীতি ও চাঁদাবাজরা আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ নয় বটে গাছে পরিণত হচ্ছে। অফরদিকে হতদরিদ্র ও হকাররা আরো দরিদ্রসীমার নীচে দিনাতিপাত করছে। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির কারণে রাস্তারপাশে কিংবা মসজিদের সামনে অসহায় মানুষের আর্তনাদ যে কাউকেই ব্যথিত ও মর্মাহত করে।

আজ শনিবার বিকেলে রাজধানীর রূপনগরস্থ একটি মিলনায়তনে হকার্স শ্রমিক আন্দোলন রূপনগর থানার হকার্স সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সেক্রেটারী জেনারেল হাফেজ মাওলানা ছিদ্দিকুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন হকার্স শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মদ ইমাম হোসেন ভূঁইয়া, মহানগর পশ্চিম সভাপতি মাওলানা গোলাম কিবরিয়া, সহ-সভাপতি মুহাম্মদ মনির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইসহাক মিয়া, রূপনগর থানা সভাপতি আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ, শ্রমিকনেতা মুহাম্মদ আনসার মল্লিক, মুহাম্মদ আব্বাস আলী। হকার্স শ্রমিক আন্দোলন সহ-সভাপতি আকতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন-এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে সহ-সভাপতি আকতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী বেলাল হোসেন-এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন শহিদুল ইসলাম, সফিউদ্দিন, ছিদ্দিকুর রহমান, হাফেজ দেলোয়ার হোসেনসহ সহযোগি সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, পুনর্বাসন ছাড়া হকার্স উচ্ছেদ বন্ধ করতে হবে। সরকারের অভিযানে দেশবাসি দেখেছে কিভাবে দেশের সম্পদ বিদেশে পাচার করছে ক্ষমতাসীন দলের কতিপয় নেতানেত্রীরা। হকাররা চাঁদা স্বাধীনদেশে কাউকে চাঁদা নয় প্রয়োজনে বৈধভাবে ট্যাক্স দিবে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই জাতীয় আরো নিউজ

© All rights reserved © 2020 bd-bangla24.com

Theme Customized By Subrata Sutradhar