মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৯:৪৩ অপরাহ্ন
Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ০৯:৪৪ PM
  • ১৩৪ বার পড়া হয়েছে

চাকরির জন্য দৃষ্টি আকর্ষণীয় সিভি গুরুত্বপূর্ণ

মোঃ নাসির, নিউ জার্সি (আমেরিকা) প্রতিনিধিঃ চাকরির জন্য বায়োডাটা বা সিভি তৈরি একটি অত্যন্ত বিভ্রান্তিকর কাজ। আর এ কাজটি আরও জটিল হলে দাঁড়ায়, আপনি যদি চাকরির ক্ষেত্র পরিবর্তন করতে চান। কারণ কোনো একটি নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে চাকরির জন্য আপনার অভিজ্ঞতা প্রয়োজন হয়। আর এ অভিজ্ঞতা যদি হয় ভিন্ন কোনো ক্ষেত্রের, তাহলে তা নিয়োগকর্তাকে আকর্ষণ করানো যথেষ্ট শক্ত একটি কাজ।

> এ বিষয়ে ক্যারিয়ার এক্সপার্ট অ্যামান্ডা অ্যাগুস্টাইন বলেন, ‘আপনি যখন ক্যারিয়ার পরিবর্তন করতে চাইবেন তখন আপনাকে অন্য বহু চাকরিপ্রার্থীকে টপকে যেতে হবে, যাদের আরও সনাতন ও সাধারণভাবে গ্রহণযোগ্য চাকরির অভিজ্ঞতা রয়েছে।’
> তবে তিনি আরও বলেন, ‘কিন্তু অসাধারণ সিভি আপনাকে এক্ষেত্রে সাহায্য করতে পারে।’

> কিন্তু কিভাবে বানাবেন অসাধারণ ও দৃষ্টিআকর্ষণীয় সিভি? যে সিভি অন্য প্রতিযোগীদের পেছনে ফেলে আপনার চাকরি নিশ্চিত করবে।

> এ প্রসঙ্গে অ্যামান্ডা বলেন, ‘আপনার পূর্ব অভিজ্ঞতা, শিক্ষা, প্রফেশনাল উন্নয়ন ও দক্ষতা নিয়ে পর্যবেক্ষণ করতে হবে এবং এ থেকে ক্যারিয়ারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় জেনে নিতে হবে। এরপর আপনার নতুন করে অবস্থান গ্রহণ করতে হবে।’
> বিষয়টি ঠিকভাবে সম্পন্ন করার জন্য আপনার সিভিতে বিষয়গুলো এমনভাবে প্রকাশ করতে হবে যেন তা নতুন গ্রাহকের বোধগম্য ও গ্রহণযোগ্য হয়। এ বিষয়ে একটি উদাহরণ প্রকাশ করেছে বিজনেস ইনসাইডার।
> ১. চাকরিপ্রার্থীর নতুন ক্যারিয়ার অবজেকটিভ খুবই পরিষ্কার
> আপনি যদি ক্যারিয়ার পরিবর্তন করতে চান তাহলে নতুন ক্যারিয়ারের অবজেক্টিভ খুবই পরিষ্কারভাবে তুলে ধরতে হবে। এতে আপনার সম্ভাব্য নিয়োগকর্তা আপনাকে নিয়োগ করতে আগ্রহী হতে পারে।
> ২. নতুন পদের উপযোগী দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরা হয়েছে
> আপনার আগ্রহের নতুন চাকরির জন্য যেমনটা প্রয়োজন, আপনার দক্ষতা, অর্জন ও যোগ্যতা ঠিক সেভাবে তুলে ধরা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এজন্য আপনার অভিজ্ঞতা ও যোগ্যতা, যা তাদের কাজে লাগবে, তা ভালোভাবে তুলে ধরা হয়েছে এ সিভিতে।
> ৩. চাকরিপ্রার্থী যা চায়, তা তুলে ধরা হয়েছে
> চাকরিদাতা তাদের বিজ্ঞাপনে কিছু বিষয়ে অভিজ্ঞতা বা দক্ষতা চেয়েছিল। চাকরিপ্রার্থী এক্ষেত্রে সে সুযোগটি কাজে লাগিয়েছেন। তাদের নির্দিষ্ট পদের জন্য তার যা যা দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা আছে, তা এখানে তুলে ধরেছেন তিনি।
> ৪. অভিজ্ঞতা নতুন করে সাজানো হয়েছে
> চাকরিপ্রার্থী তার আগের চাকরির অভিজ্ঞতা এমনভাবে সাজিয়েছেন, যেন তা নতুন চাকরির জন্য উপযোগী হয়।
> ৫. শুধু প্রয়োজনীয় অভিজ্ঞতার সমাহার
> চাকরিপ্রাথীর আরও অনেক অভিজ্ঞতা থাকলেও তা এক্ষেত্রে উল্লেখ করা হয়নি। এক্ষেত্রে চাকরির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ অভিজ্ঞতাই তিনি তুলে ধরেছেন।
> ৬. পরিসংখ্যানের ব্যবহার
> চাকরির নানা অর্জন পরিষ্কারভাবে তুলে ধরার জন্য পরিসংখ্যানের তুলনা নেই। এই সিভিতেও গুরুত্বপূর্ণ অর্জন পরিসংখ্যান আকারে তুলে ধরেছেন চাকরিপ্রার্থী।
> ৭. অতিরিক্ত যোগ্যতা
> চাকরির সঙ্গে আপাতদৃষ্টিতে সঙ্গতিহীন মনে হলেও কয়েকটি গুণের কথা উল্লেখ করেছেন তিনি। এর মধ্যে রয়েছে যোগাযোগের দক্ষতা, প্রফেশনাল অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যপদ, স্বেচ্ছাসেবক কাজ, ইন্টার্নশিপ ও পাঠসহায়ক কার্যক্রম। এসব বিষয় চাকরিটির জন্য এ ব্যক্তির যোগ্যতাকে তুলে ধরতে কাজে লাগে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই জাতীয় আরো নিউজ

© All rights reserved © 2020 bd-bangla24.com

Theme Customized By Subrata Sutradhar