শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কিং খালিদ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর ও আভা চেম্বারের মহাসচিবের সাথে জাবেদ পাটোয়ারীর বৈঠক ফরিদগঞ্জের সন্তোষপুরের সন্ত্রাসী হামলায় গ্রেফতার দুই, তিনটি গরু উদ্ধার সোশ্যাল মিডিয়ায় ফোন নম্বর-ইমেইল না রাখার পরামর্শ বিটিআরসির আটক শিক্ষার্থীদের ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে একসঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড ফরিদপুরের বরকত-রুবেলের ৫৭০৬ বিঘা জমি ও ৫৫ গাড়ি ক্রোকের নির্দেশ ময়মনসিংহ সিটির ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে আইপি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করোনার সবশেষ খবর, ২৫ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার রেলওয়ে নিরাপত্তা ও শিডিউল রক্ষায় ডাবল লাইন নির্মাণ জরুরী: রেলপথ মন্ত্রী ময়মনসিংহ কর্ম এলাকার সমাপ্তি ও বাস্তবায়ন কমিটি গঠন
Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ১১:৪২ AM
  • ১০১ বার পড়া হয়েছে

শেরপুরে রেলপথ চেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক রেলমন্ত্রীকে চিরকুট

আব্দুল্লাহ আল-আমিন, শেরপুর প্রতিনিধি: দেশের অন্যতম সীমান্তবর্তী জেলা শেরপুরের সকল বাসিন্দার প্রাণের দাবি হিসেবে রেলপথ চেয়ে রেলমন্ত্রী জনাব নূরুল ইসলাম সুজনকে চিরকুট দিয়েছেন নালিতাবাড়ী উপজেলার নন্নী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একেএম মাহবুবুর রহমান রিটন। গতকাল তাঁর দেয়া চিরকুটটি ছবিসহ সোশাল মিডিয়া ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার পর সকলের প্রশংসায় ভাসছেন তিনি। তাঁর ফেসবুক পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলো:

আজ ঢাকার একটি অনুষ্ঠানে দেখা হয়েছিল গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের রেলমন্ত্রী মোঃ নূরুল ইসলাম সুজন মহোদয়ের সাথে। উনাকে সামনাসামনি পাওয়ার পরেই একটা কথা বলার জন্য মনটি খচখচ করছিলো কিন্তু সাহস পাচ্ছিলামনা। আমি ছোট্ট একটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আর উনি পুরো বাংলাদেশের মন্ত্রী!!!!

এরপরও মনের তাড়নায় একটা চিরকুট লিখে উনার সামনে হাজির হয়ে বললাম,
“আসসালামু আলাইকুম স্যার। এটা দয়াকরে পড়বেন। ”

উনি বললেন : “কি এটা?”

আমি বললাম,” স্যার, এটা একটা জেলার সমস্ত জনগণের মনের কথা।দয়াকরে পড়ে দেখবেন। ”

কিঞ্চিৎ বিস্ময় নিয়ে উনি চিরকুটটি হাতে নিলেন এবং পড়ে দেখলেন। ততক্ষণে আমি আমার সিটে চলে এসেছি । দূর থেকে দেখলাম পাশের দুই তিন জনের সাথে চিঠিটি দেখিয়ে কথা বললেন এবং পকেটে রেখে দিলেন। সবশেষে আমার দিকে তাকিয়ে সম্মতিসূচক মুচকি হাসি দিলেন এবং হাত নেড়ে কিছু একটা বুঝালেন। বুঝতে পারলাম ব্যপারটা উনি গুরুত্বের সাথে নিয়েছেন।

এখন কাজ হোক বা না হোক, একজন মন্ত্রীর সামনে আমার সামর্থের মধ্যে এটুকুই ছিলো। জেলার অন্যান্য বাসিন্দারা যারা সরকার কিংবা স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন স্তরে রয়েছেন , তারা নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী প্রচেষ্টা চালালে একসময় আমাদের স্বপ্ন পুরন হবেই ইনশাআল্লাহ।

Please Share This Post in Your Social Media

এই জাতীয় আরো নিউজ

© All rights reserved © 2020 bd-bangla24.com

Theme Customized By Subrata Sutradhar