বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন
Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ০৫:৪৭ PM
  • ২০ বার পড়া হয়েছে

একুশের চেতনাকে আমাদের ধারন করতে হবে: নুরুল কবির পিন্টু

একুশে ফেব্রুয়ারি হলো বাঙালি জাতির উম্মেষ।একুশে ফেব্রুয়ারির চেতনা বিভিন্নভাবে আমাদের ভিত্তি নির্মাণ করেছে মন্তব্য করেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব নুরুল কবির ভুইয়া পিন্টু বলেন,বায়ান্নর একুশে ফেব্রুয়ারির ভাষা আন্দোলন বৈষম্য আর পাকিস্তানী স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে বাঙালির প্রথম বিজয়।

সোমবার(২২ ফেব্রুয়ারি) নয়াপল্টনে ঢাকা মহানগর কার্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে উপলক্ষে আলোচনা সভা। বাংলাদেশ কৃষক কল্যাণ পার্টি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ৫২’র ২১ ফেব্রুয়ারি ভাষার অধিকারের পথ ধরেই গণতন্ত্র ও অর্থনৈতিক অধিকারের দাবি উচ্চারিত হয়েছিল। শুরু হয়েছিল, স্বায়ত্তশাসন ও স্বাধিকারের সংগ্রাম। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটে। নুরুল কবির পিন্টু বলেন ভাষা আন্দোলন কেবলমাত্র নিছক একটি আন্দোলন অথবা ভাষারই আন্দোলন ছিল না বরং চেতনা সঞ্চারী এই আন্দোলন ভেতরগত অবিনাশী চেতনার স্মারক হয়ে রয়েছে। এই চেতনা স্বাধীনতার রক্ষাকবচ বটে। ভাষা আন্দোলন প্রকৃত অর্থে রাষ্ট্রযন্ত্রের সব প্রতারণার বিরুদ্ধে বিজয়ের নির্দেশক।তিনি আরো বলেন একুশের চেতনার হাত ধরেই আমার আমরা মুকিযুদ্ধ করিছি এবং স্বাধীনতা পেয়েছি,অতএব ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এক অভিন্ন, একুশের চেতনাকে আমাদের বুকে ধারন করতে হবে।তাহলেই ভাসা শহীদের আত্মত্যাগ সার্থক হবে।

 

বাংলাদেশ কৃষক কল্যাণ পার্টি’র আহ্বায়ক মো.শামসুদ্দিন পারভেজ এর সভাপতিত্বে কৃষক কল্যাণের সদস্য সচিব এরশাদুর রহমান এর সঞ্চালনায় সভাপতির বক্তব্যে শামসুউদ্দিন পারভেজ ,বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি-প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক জাহিদুর রহামন, আলোচনায় অংশগ্রহন করেন রাসেদ ফেরদৌস সোহেল মোল্লা, আল আমি ভুইয়া,জসিম উদ্দিন প্রমুখ। সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ কৃষক কল্যাণ পার্টির আহ্বায়ক বলেন, বায়ান্নর একুশের চেতনাকে ধারণ করেই তো চুয়ান্নর নির্বাচনে মুসলিম লীগ সরকারকে হটিয়ে যুক্তফ্রন্টের জয়লাভ। সেই পরম্পরায় আইয়ুব খানের মৌলিক গণতন্ত্র প্রত্যাখ্যাত হলো এবং স্বায়ত্তশাসনের দাবি মুখ্য হয়ে উঠল।

 

তিনি বলেন, পরবর্তীকালে ছেষট্টিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছয় দফা ও উনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থান স্বায়ত্তশাসনের দাবিকে ধীরে ধীরে নিয়ে চলল স্বাধিকারের দিকে। এরপরের ঘটনা তো ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে পৃথিবীর মানচিত্রে স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়।বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কল্যাণ পার্টির প্রচার ও প্রাশনা বিষয়ক সম্পাদক জাহিদুর রহামন বলেন বলেন, বাংলা ভাষা অন্য এক মাত্রায় পৌঁছেছে একুশে ফেব্রুয়ারির হাত ধরে। আমাদের একুশে ফেব্রুয়ারি এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসও। বিশ্বের পঁচিশ কোটি লোক আজকে বাংলা ভাষায় কথা বলে। তিনি বলেন, আজকে একুশে ফেব্রুয়ারির তাৎপর্যকে ধারণ করতে হলে ভাষা আন্দোলনের মূল চেতনা,অধিপত্যবাদবিরোধী চেতনা ও শক্তির দিকে আমাদের ফিরে তাকাতেই হবে। সেখানেই আমাদের মুক্তি নিহিত।

Please Share This Post in Your Social Media

এই জাতীয় আরো নিউজ

© All rights reserved © 2020 bd-bangla24.com

Theme Customized By Subrata Sutradhar