বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০১:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
করপোরেশনের দীর্ঘমেয়াদী মহাপরিকল্পনা প্রণয়নে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সাথে প্রথম মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত একজন সংগ্রামী নারী ব্রয়লার মুরগীর কাটা মাংস বিক্রেতার গল্প নানা আয়োজনে জয়ের জন্মদিন উদযাপন ভিকারুননিসার প্রিন্সিপালের অপসারণ চায় বিএনপি প্রকৌশলীদের তত্ত্বাবধানে আশ্রয়ণ প্রকল্প বাস্তবায়নের সুপারিশ আইইবির ইভ্যালিতে ১০০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে যমুনা গ্রুপ জনপ্রশাসন পদক পেলো ৩২ কর্মকর্তা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের বক্তব্য তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রীর প্রত্যাখ্যান লকডাউনে রাজধানীতে গ্রেপ্তার ৫৫৫ নারায়ণগঞ্জের মেয়র আইভিকে শান্তনা দিতে তার বাসায় শামীম ওসমান
Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১, ০৯:৪৪ AM
  • ২৮২ বার পড়া হয়েছে

“It’s raining cats and dogs.”

বর্ষাকালে ঢাকা ও চট্টগ্রাম শহরের নিচু এলাকায় জলাবদ্ধতা তৈরী হয়। যদি নির্দিষ্ট বিরতি দিয়ে বৃষ্টি হয় তাহলে ঢাকা শহরে অল্প কিছু জায়গা ছাড়া বাকি জায়গায় জলজট হবে না। ২৪ ঘন্টায় ৬০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টি হলেও তেমন বড় কোন সমস্যা হয় না। কিন্তু বর্ষাকালে যখন আশেপাশের নদ নদীগুলো (তুরাগ- বালু- শীতলক্ষ্যা-বুড়িগঙ্গা) পানিতে টইটম্বুর থাকে, ঠিক সেই সময়ে যদি কোনদিন ২৪ ঘন্টায় ১৬০ মিলিমিটারেও বেশি বৃষ্টি হয়, আর আমরা যদি তাৎক্ষণিকভাবে পানি সরে যাওয়ার মত ব্যবস্থা দেখতে চাই, তাহলে ঢাকা শহরের সবগুলো রাস্তাকে ড্রেনে রূপান্তর করতে হবে। পৃথিবীর প্রায় শহরেই হঠাৎ করে অল্প সময়ের মধ্যে অস্বাভাবিক মাত্রায় বৃষ্টি হলে জলজট তৈরি হয়। মুষলধারে বৃষ্টি হলে এমনটি হবেই। সতের শতকের গোড়ার দিকে লন্ডনের পয়নিষ্কাশন এবং পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার অবস্থা এখনকার মত তত উন্নত ছিল না। লন্ডনবাসীরা অনেকেই রাস্তার মধ্যে ময়লা ফেলত (৩০০ বছর পরেও আমরা ঢাকাবাসীরা যেমনটা এখন করছি)। ময়লার বিষক্রিয়ায় অনেক কুকুর বিড়াল মারা যেত। প্রচুর বৃষ্টি হলে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতো এবং মরা কুকুর বিড়াল ভেসে যেত। যার কারণে ‘মুষলধারে বৃষ্টি হচ্ছে’ -এটার ইংরেজি হচ্ছে “it’s raining cats and dogs”. ইংরেজ কবি Jonathan Swift ১৭১০ সালে প্রকাশিত তাঁর “City shower” কবিতায় বৃষ্টির পরে বন্যা অবস্থার বর্ণনা করতে গিয়ে ‘ক্যাটস এন্ড ডগস’ বাগধারাটির(idioms) ব্যবহার করেন। এরপর থেকেই মুষলধারে বৃষ্টির ইংরেজি হিসাবে এই বাগধারাটি ব্যবহৃত হয়ে আসছে।
>
> মুষলধারে বৃষ্টি হলে এমনকি সৌদি আরবের জেদ্দায় এবং তুরস্কের ইস্তাম্বুলের মত পাহাড়ি শহরেও জলাবদ্ধতা দেখা যায়। এটা একটা ‘আরবান প্রবলেম’ । শহরের বেশিরভাগ জায়গায় পাকা আচ্ছাদন দিয়ে ঢেকে ফেলা এবং খাল নদী ভরাট করায় পানি প্রাকৃতিক নিয়মে মাটি ভেদ করে নিচের দিকে যেতে পারে না। এটাই শহরে জলাবদ্ধতার প্রধান কারণ। অনেকে বলে ডিএনডি(ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-ডেমরা) বাঁধের ভিতর আবাসিক এলাকায় বর্ষার দিনে জলাবদ্ধতা হয়ে মাছ চাষের অবস্থা হয়। আমি বলেছিলাম গত শতকের ষাটের দশকে ঢাকা শহরে তাজা শাক-সবজি এবং মাছ সরবরাহের জন্য ডিএনডি প্রকল্প নেয়া হয়েছিল। প্রকল্প প্রস্তাবে তাই লেখা ছিল। ওখানে মাছ চাষ করারই কথা ছিল, কিন্তু মাছের জায়গায় মানুষ গিয়ে বসতি স্থাপন করেছে। অতএব জলজট হবেই। এই সমস্যাটির আসলে কোন সমাধান নেই। ওয়াসা এবং সিটি কর্পোরেশন চেষ্টা করলে এবং আমরা নাগরিকরা সচেতন হলে (সবকিছু ওয়াসার ড্রেনে না ফেললে) সমস্যাটি কিছুটা কমানো যাবে কিন্তু হঠাৎ করে একদিনে অনেক বৃষ্টি হলে এই সমস্যাটি হবেই। এটা আমাদের মেনে নিতে হবে এবং এটাকে দুর্যোগ হিসেবেই বিবেচনা করতে হবে। যেমনটি হয় নিউইয়র্ক ও তার আশেপাশে এলাকায়, শীতকালে বরফ জমে যায় এবং এর কারণে মানুষ ঘর থেকে বের হতে পারে না। স্কুল কলেজ দোকানপাট সব বন্ধ থাকে দিনের পর দিন। শত শত উড়োজাহাজ এবং ট্রেন যাত্রা বাতিল করে। মানুষের ভোগান্তি চরমে ওঠে। আমাদের এখানে এটাকেই ধনী দেশের বরফ পড়া সমস্যার মত মোকাবেলা করতে হবে (ওরা ধনী বলে ওদের শহরে বরফ পড়ে আর আমরা গরীব বলে আমাদের এখানে পানি আসে!)। খিলগাঁও, বাসাবো, বাড্ডা, মান্ডাসহ যেসব এলাকায় হঠাৎ করে বৃষ্টি হলে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয় সেখানে বাসাবাড়ি এবং দোকানপাটগুলো এমনভাবে নির্মাণ করতে হবে যাতে হঠাৎ করে বৃষ্টি হলে সর্বোচ্চ পানি হলেও যেন দোকানপাট এবং বাসাবাড়ির মালামাল ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। আর যেদিন এরকম বৃষ্টি হবে নিউইয়র্কের মত ঢাকা শহরের স্কুল এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ দিয়ে দিতে হবে; এছাড়া আপাতত আর কোন সমাধান নেই। অনিয়মিত চাহিদা মোকাবেলায় বাজারজাতকরণের সাথে সংশ্লিষ্টরা তালে তালে ব্যবস্থা গ্রহণ করে। এটাকে বলা হয় সিনক্রো মার্কেটিং (synchro marketing)। নৃত্যের তালে তালে সাঁতার কাটার মতন( synchro swimming)।
>
> ড. মীজানুর রহমান
> অধ্যাপক, মার্কেটিং বিভাগ , ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

Please Share This Post in Your Social Media

এই জাতীয় আরো নিউজ

© All rights reserved © 2020 bd-bangla24.com

Theme Customized By Subrata Sutradhar