বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
দেশে ডিজেলের মূল্য প্রতিবেশী দেশের চেয়ে কম: তথ্যমন্ত্রী কোস্টারিকা বিশ্বে প্রথম শিশুদের করোনা টিকা বাধ্যতামূলক করলো যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে সঙ্গীতানুষ্ঠানে হুড়োহুড়ি ৮ মৃত্যু জাতিসংঘের জলবায়ুবিষয়ক ‘কপ২৬ সম্মেলন ব্যর্থ: গ্রেটা থুনবার্গ ব্রাজিলের জনপ্রিয় গায়িকা মারিলিয়া মেন্ডনকা প্লেন দুর্ঘটনায় নিহত ইউরোপে করোনায় আরও পাঁচ লাখ লোক মারা যাবে ডেমোক্র্যাটিক গভর্নর ফিল মারফি নিউ জার্সিতে পুনরায় নির্বাচিত সৌদি ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান সৌদি আরবে জেলাখানায় থাকা বাংলাদেশিদের মুক্তির অনুরোধ আগামী ১৭ নভেম্বর বুধবার পবিত্র ফাতেহা-ই-ইয়াজদাহম পালিত হবে
Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১ নভেম্বর, ২০২১, ০৮:৪০ AM
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে

টিনএজারদের জীবনে বাড়ছে স্ট্রেস

ডাঃ কারল লাটোরটু—-বর্তমানে টিনএজারদের স্ট্রেসের মাত্রা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। ১৩ থেকে ১৯ বছরের বালক-বালিকাদেরই টিনএজার বলা হয়। হাই স্কুলের ছাত্রদের উপর প্রচুর চাপ থাকে, তা তাদের পিতামাতারাই জানেন। তাদেরকে ৬ টা থেকে ৬.৩০ এ ঘুম থেকে উঠতে হয় ৭.১৫ মিনিটের মধ্যে স্কুলে পৌঁছানোর জন্য। তাদেরকে সারাদিন ক্লাস, খেলায় অংশগ্রহণ এবং অতিরিক্ত কোন কাজ (এক্সট্রা কারিকুলাম এক্টিভিটিস) এ অংশগ্রহণ করতে হয়। তারপর বাসায় এসে রাতের খাবার খাওয়া এবং ৪ থেকে ৫ ঘন্টা হোম ওয়ার্ক করতে হয়। তাদের প্রতিদিনের রুটিন এরকমই প্রায়।
>>
>> যদি তারা স্কুল বা কলেজের সাথে খুব বেশি যুক্ত না থাকে তাহলে তাদের সামাজিক দক্ষতা সীমিত থাকে। তাদের ক্লাসমেটদের দ্বারা ড্রাগ, ধূমপান, অ্যালকোহল, নকল করা বা চুরি করার মত প্রলোভনের শিকার হয় তারা।
>>
>> বর্তমানে প্রায় প্রতিটা কিশোর-কিশোরীর হাতেই মোবাইল থাকে। ইন্টারনেটে তথ্য খোঁজা, মোবাইলে ম্যাসেজ করা, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সময় অতিবাহিত করা অথবা মোবাইলে কথা বলায় অনেক সময় ব্যয় করে তারা। ফলে তাদের মধ্যে কাজে মনোযোগ দেয়াটা অনেক চ্যালেঞ্জিং হয়।
>>
>> কম স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া, ক্যাফেইন গ্রহণ করা এবং ব্যায়াম না করার ফলে বর্তমানের কিশোর- কিশোরীরা উচ্চমাত্রার উদ্বিগ্নতা এবং বিষণ্ণতায় ভুগে থাকে।
>>
>> ফাস্ট ফুডের দোকানের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়া এবং জাঙ্ক ফুডের সহজলভ্যতার কারণে আমাদের খাদ্যাভ্যাস নাটকীয়ভাবে পরিবর্তিত হয়েছে। অতিরিক্ত চিনি, ক্যাফেইন এবং ক্যালোরি গ্রহণের ফলে শরীরের উপর খারাপ প্রভাব পড়ছে এবং কর্মশক্তি অনুভব করা ও জীবন সম্পর্কে উৎসাহী হওয়াটা কঠিন হয়ে পড়ছে।
>>
>> এধরনের প্রভাবকগুলোর প্রভাবকে দূরে ঠেলে দিয়ে ফোকাস ঠিক রাখা, কর্মশক্তি পাওয়া এবং কাজে মনোযোগী হওয়ার জন্য কিশোর- কিশোরীদের ক্রমবর্ধমান উদ্বিগ্নতা ও বিষণ্ণতার বিরুদ্ধে সংগ্রাম করতে হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

এই জাতীয় আরো নিউজ

© All rights reserved © 2020 bd-bangla24.com

Theme Customized By Subrata Sutradhar